সাধারণ ছুটির মেয়াদ বাংলাদেশে আবার বাড়ানো হতে পারে

করোনাভাইরাসের মহামারি ঠেকাতে বাংলাদেশে ২৬শে মার্চ থেকে চলতে থাকা সাধারণ ছুটি ১৪ই মে পর্যন্ত বাড়ানো হতে পারে বলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

ঐ কর্মকর্তা জানান বাংলাদেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের হার বাড়তে থাকায় ছুটি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে এবং এই সিদ্ধান্তে প্রধানমন্ত্রী সম্মতি দিয়েছেন।

তবে ছুটির ঘোষণা জানিয়ে আনুষ্ঠানিক প্রজ্ঞাপণ সোমবার জারি করা হতে পারে বলে জানান করেন ঐ কর্মকর্তা।

১৪ই মে বৃহস্পতিবার হওয়ায় কার্যত এই ছুটি শেষ হবে ১৬ই মে।

মন্ত্রণালয় সূত্র থেকে জানা যায়, সাধারণ ছুটি বলা হলেও এই সময়ে এক জেলা থেকে অন্য জেলায় মানুষজন যেন যাতায়াত করতে না পারে, তা নিশ্চিত করতে বিশেষ নির্দেশনা দেয়া হতে পারে এই ছুটির প্রজ্ঞাপণে।

গত কয়েকদিন দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে লঞ্চ ও ফেরিতে করে কলকারখানা শ্রমিকদের তাদের কর্মক্ষেত্রের দিকে ফেরার ঘটনা নজরে আসার পর এসব নির্দেশনা যোগ করা হচ্ছে বলে জানা যায়।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে ২৬শে মার্চে প্রথম দফা সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছিল।

এরপর তিন দফা বাড়ানোর পর ছুটি বর্ধিত হয় ৫ই মে পর্যন্ত।

এবার ষষ্ঠ দফায় ছুটির মেয়াদ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হলো।