ভৈরবে পুলিশের পিটুনিতে পাদুকা ব্যবসায়ীর মৃত্যুর অভিযোগ

এম.এ হালিম,ভৈরব প্রতিনিধি ॥
ভৈরবে পুলিশের পিটুনিতে সোহেল ভ’ইঁয়া (৩৮ ) নামে এক পাদুকা ব্যবসায়ীর মর্মান্তিক মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে । নিহত সোহেল ভ’ইয়াঁ মানিকদী মধ্যপাড়া গ্রামের মৃত আঃ লতিফ ভ’ইয়াঁ ওরফে শম্ভু ফকিরের পূত্র । তবে পুলিশ নির্যাতনের কথা অস্বীকার করে বলেন এ বিষয়ে একটি অপমৃত্যু এবং জোয়ারীদের বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে আলাদা ২টি মামলা রুজু করা হয়েছে । তা তদন্তাধীন আছে । এছাড়াও নিহত সোহেলের বিরুদ্ধে নরসিংদীর শিবপুর থানায় মাদক আইনে মামলা রয়েছে । পরে রাতেই পুলিশ নিহতের মরদেহ সুরত হাল রিপোর্ট করে ময়না তদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায় ।
নিহতের স্বজন ও এলাকাবাসিরা জানান মঙ্গলবার বিকালে ভৈরব থানা পুলিশ মানিকদী মধ্যপাড়া এলাকায় একটি জোয়ার আসরে হামলা চালায় । এ সময় জোয়ারীরা দৌড়ে পালিয়ে যায় । এ সময় ভয়ে নিহত সোহেলও দৌড়ে পালাতে গিয়ে পাশের একটি নদীতে পড়ে যায় । পরে পুলিশ সেখান থেকে তাকে ধরে মারধর করে সিএনজি অটোরিক্সায় তুললে সে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড় । এ সময় স্থানীয় গ্রাম পুলিশের দফাদার আরফানের সহায়তায় পুলিশ তাকে বাড়িতে পাঠালে সে মারা যায় । নিহত স্বজনদের দাবী পুলিশের পিটুনিতে তার মৃত্যু হয়েছে । নিহতের স্বজনদের দাবী সে জোয়া খেলা বোঝেনা কোনদিন খেলেও না। বাড়ি থেকে বের হয়ে রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় জোয়া খেলার কাছে দাড়িয়ে ছিল । নিহত সোহেলের বড় মেয়ে নরসিংদীর বেলাব উপজেলার দেওয়ানের চর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ম ও ছোট মেয়ে স্থানীয় আলফাজ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম এবং সবার ছোট ছেলে একই বিদ্যালয়ের ৮ম শেণীতে অধ্যায়নরত । এ ঘটনায় নিহতের স্বজন ও এলাকাবাসিরা দোষী পুলিশের বিরুদ্ধে শাস্তির দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী জানান ।
এ বিষয়ে নিহতের চাচাতো ভাই বাদল মিয়া, ও মনিরুজ্জামান জানান জোয়ারীরা পুলিশের তাড়া খেয়ে জোয়ারিরা পালিয়ে গেলেও সোহেল পানিতে পড়ে যায় । পরে পুলিশ তাকে ধরে মারধর করে গাড়ীতে উঠালে সে অসুস্থ হয়ে যায় । পরে স্থানীয় দফাদার আরফানের সহায়তায় তাকে মৃত অবস্থায় বাড়িতে পাঠায় ।
এ বিষয়ে স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য ও গজারিয়া ইউপি আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি ফুল মিয়া সহ এলাকার অনেকেই একই কথা বলেন ।
স্থানীয় গজারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান কাজী গোলাম সারোয়ার জানান তিনিও শোনেছেন জোয়ারীদের ধরতে পুলিশ অভিযান চালালে জোয়ারীরা পালিয়ে যায় । কিন্ত এ সময় সোহেল কে পুলিশ আটক করে । পরে পুলিশ তাকে মারধর করলে সে মারা যায় । তবে ময়নাতদন্তেও রিপোর্ট পেলে জানা যাবে আসলে কোনটা সত্য । এছাড়া তিনি আরো বলেন এ এলাকায় জোয়া খেলা হয় । এ সংবাদ পুলিশ কে আমরা আরো আগেই জানিয়েছিলাম । এ সংবাদেও ভিত্তিতেই পুলিশ অভিযান চালায় ।

এ বিষয়ে ভৈরব থানার ওসি (তদন্ত ) বাহালুল খান বাহার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন এলাকার ইউপি চেয়ারম্যানের কাছ থেকে জোয়া খেলার সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছলে জোয়ারীরা দৌড়ে পালিয়ে যায় । এ সময় সোহেল পানিতে গর্তের মধ্যে পড়ে যায় । পরে সে বিকালে বাড়িতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে মারা যায় ।
এ ঘটনায় দফাদার আরফান বাদী হয়ে একটি ইউডি মামলা দায়ের করেছে । এছাড়া জোয়া খেলার অপরাধে পুলিশের পক্ষ থেকে একটি সহ মোট ২টি মামলা রুজু করা হয়েছে ।

Sultan Rayhan Uddin

Lorem Ipsum is simply dummy text of the printing and typesetting industry. Lorem Ipsum has been the industry's standard dummy text ever since the 1500s, when an unknown printer took a galley of type and scrambled it to make a type specimen book. It has survived not only five centuries