‘শুভেচ্ছা’ জানাতে গিয়ে নির্যাতনের শিকার, পাল্টাপাল্টি মামলায় গ্রেপ্তার ২

ফেনীর সোনাগাজীতে নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক ছাত্রীকে ‘জন্মদিনের শুভেচ্ছা’ জানানোকে কেন্দ্র করে এক ব্যক্তিকে খুঁটিতে বেঁধে নির্যাতন ও ছবি ফেসবুকে ছড়ানোর ঘটনায় পাল্টাপাল্টি মামলা হয়েছে। রোববার রাতে উপজেলার পাইকপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দুই মামলায় দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানান, হামিদ হোসেন নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে প্রাইভেট পড়াতেন। ওই ছাত্রীর সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক গড়ে ওঠে। করোনার কারণে প্রাইভেট পড়ানো বন্ধ ছিল। রোববার ছাত্রীটির জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানাতে যান হামিদ। বিষয়টি জানতে পেরে ছাত্রীটির পরিবারের লোকজন ঘরের সামনের উঠানে বিদ্যুতের খুঁটির সঙ্গে হামিদকে বেঁধে রাতভর নির্যাতন করেন। নির্যাতনের ছবি ফেসবুকে ছেড়ে দেন ছাত্রীর ভাই। সোমবার সকালে ফেসবুকে ছবি দেখে পুলিশ হামিদকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

ছাত্রীটিকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে তার বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। এতে হামিদকে আসামি করা হয়। অন্যদিকে হামিদের বাবা বেলায়েত হোসেন বাদী হয়ে তাঁর ছেলেকে নির্যাতনের অভিযোগে ছাত্রীর ভাইকে আসামি করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে পাল্টা মামলা করেন।

ছাত্রীর বাবাও জামায়াতে ইসলামীর রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, হামিদ তাঁর মেয়েকে দীর্ঘদিন ধরে উত্ত্যক্ত করে আসছেন। রোববার রাতে ঘরে ঢুকে তাঁর মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন তিনি।

অন্যদিকে হামিদ উপজেলা ছাত্রশিবির উত্তরের সাবেক সভাপতি। তাঁর বাবা বেলায়েত হোসেন দাবি করেন, ওই মেয়ের সঙ্গে তাঁর ছেলের সম্পর্ক আছে। জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাতে গেলে তাঁর ছেলেকে বেঁধে নির্যাতন করা হয়।

সোনাগাজী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সাজেদুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ওই ছাত্রীর জবানবন্দি গ্রহণ করেছেন আদালত। একই সঙ্গে হামিদ ও ছাত্রীর ভাইকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দুজনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Source: Prothomalo

%d bloggers like this: