নজরুল রাজকেও রিমান্ডে পেল পুলিশ

চিত্রনায়িকা পরীমনির পর প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজেরও চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে পরীমনি ও নজরুল রাজ এবং তাঁদের দুই সহযোগী আশরাফুল ইসলাম ও সবুজ আলীকে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে বনানী থানা–পুলিশ। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের পৃথক দুই মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য প্রত্যেকের সাত দিন করে রিমান্ড চাওয়া হয়।

ঢাকার মহানগর হাকিম মামুনুর রশীদ প্রথমে পরীমনি ও তাঁর সহযোগী আশরাফুলের মামলায় শুনানি নেন। দুজনেরই চার দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন তিনি। পরে একই আদালতে নজরুল রাজ ও তাঁর সহযোগী সবুজের রিমান্ড শুনানি হয়। তাঁদের দুজনেরও চার দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন বিচারক।

গতকাল বুধবার বিকালে রাজধানীর বনানীতে পরীমনির বাসায় অভিযান চালিয়ে বর্তমান সময়ের আলোচিত–সমালোচিত এই চিত্রনায়িকাকে আটক করে র‍্যাব। পরে রাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার নজরুল ইসলাম রাজকে আটক করা হয়।

বৃহস্পতিবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক খন্দকার আল মঈন বলেন, পরীমনির বাসায় মিনি বার রয়েছে। মদের লাইসেন্স থাকলেও মেয়াদ পেরিয়েছে অনেক আগেই। পরীমনি, নজরুল রাজসহ এই চক্র ডিজে পার্টির আয়োজনের মাধ্যমে বিপুল অর্থ উপার্জন করত। এসব অর্থ তারা বিভিন্ন ব্যবসার কাজে লাগাত।

এরপর বনানী থানায় পরীমনি ও নজরুল রাজের বিরুদ্ধে পৃথকভাবে ওই দুই মামলা করে র‍্যাব। পরীমনির বিরুদ্ধে মামলায় তাঁর ম্যানেজার আশরাফুল ইসলামকে আসামি করা হয়। আর নজরুল রাজের সঙ্গে তাঁর ম্যানেজার সবুজ আলীকে আসামি করা হয়।

গতকাল বুধবার বিকেলে র‍্যাবের একটি দল পরীমনির বাসায় অভিযান চালায়। অভিযান শেষ র‌্যাবের পক্ষ থেকে বলা হয়, পরীমনির বাসা থেকে বিপুল পরিমাণ ওয়াইন, আইস, এলএসডি ও মাদক সেবনের সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

পরীমনিকে আটকের পর বুধবার রাতেই বনানী এলাকায় প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজের কার্যালয়ে অভিযান চালায় র‍্যাব। সেখান থেকে বিপুল পরিমাণ মদ ও ইয়াবা উদ্ধার করা হয় বলে র‍্যাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

আটকের পর রাতেই পরীমনি ও নজরুল রাজকে র‍্যাব সদর দপ্তরে নেওয়া হয়। সেখানে দুজনকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর বৃহস্পতিবার বিকেলে সংবাদ সম্মেলন করেন র‍্যাবের মুখপাত্র খন্দকার আল মঈন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, নজরুল রাজের কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে তাঁর কম্পিউটারসহ কিছু ডিভাইস জব্দ করা হয়েছে। তাঁর মোবাইল ফোনও জব্দ করা হয়েছে। এগুলো থেকে বেশ কিছু ছবি ও ভিডিও চিত্র পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে তাঁর বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি আইনেও মামলা করা হবে।

Source: Prothomalo

%d bloggers like this: