সীমাখালীর ভেঙে পড়া লোহার ব্রিজটি ১ বছরেও অপসারণ হয়নি

শালিখা(মাগুরা)প্রতিদনিধিঃ মাগুরার শালিখার সীমাখালীতে চিত্রা নদীর উপর ভেঙে পড়া লোহার ব্রিজটি ১ বছরের অধিক কাল পার হলেও অপসারণ করা হয়নি। নদীতে ভেঙে পড়া লোহার ব্রিজের মাঝের অংশ পানিতে ডুবে থেকে কোটি কোটি টাকার সম্পদ নষ্ট হচ্ছে। ব্রিজের লোহার যন্ত্রাংশ পানিতে তলিয়ে গিয়ে মরিচা ধরছে। ভেঙে পড়া লোহার ব্রিজটি ১ বছরের অধিক কাল পার হলেও ব্রিজটির যন্ত্রাংশ খোলা হচ্ছে না। ফলে কোটি কোটি টাকার সম্পদ নষ্ট হচ্ছে।
দির্ঘকাল আগে সড়ক ও জনপথ বিভাগের উদ্যোগে যশোর মাগুরা ভায়া আড়পাড়া সড়কের মাঝে চিত্রা নদীর উপর সীমাখালীতে এই লোহার সেতুটি নির্মিত হয়েছিল।গত বছর ১৩ ফেব্রুয়ারি একই সাথে তিনটি ওভার লোডিং ট্রাক ব্রিজের উপর উঠলে প্রচন্ড শব্দে সেতুটি ভেঙে পড়ে। বোঝাই ট্রাক একটি পার হলেও দুটি পাথরের খোয়া বোঝাই ট্রাক ও একটি কভার ভ্যান ব্রিজের উপর আটকে পড়ে।এরপর ৩ কোটি ৬০ লাখ টাকা ব্যয়ে মাগুরা সড়ক ও জনপথ বিভাগ নতুন বেইলি ব্রিজ নির্মান করে দেয়।বেইলি ব্রিজ নির্মান করতে ৫ মাস অতিবাহিত হয়। এরপর গতবছর ২৩ জুন ব্রিজের একাংশ ছেড়ে দেয়া হয়।কিছুদিনের মধ্যে উভয় অংশ খুলে দেয়া হয়।এর উপর দিয়েই বর্তমান যানবাহন চলাচল করছে কিন্তু ভেঙে পড়া লোহার ব্রিজটি ১ বছরের অধিক কাল পার হলেও অপসারণ না করায় সেটি পানিতে ডুবে নষ্ট হচ্ছে। মুল্যবান লোহার সামগ্রী পানি থেকে অপসারন করলে কোটি কোটি টাকার সরকারি সম্পদ রক্ষা করা সম্ভব বলে অভিজ্ঞমহল ধারনা দিয়েছেন।