রাঙ্গুনিয়ায় আগুনে পুড়ে গেছে ৫ বসতঘর ও গুদাম

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি : চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় আগুনে পুড়ে গেছে ৫ বসতঘর ও ২টি গোডাউন। এতে প্রায় পাঁচ লাখ টাকার য়তি হয়েছে। শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) দিনগত রাত একটার দিকে চুলার আগুন থেকে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে রাঙ্গুনিয়া ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।
রাঙ্গুনিয়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স কর্মকর্তা দুলাল কুমার মিত্র বলেন, ‘শনিবার রাত ১টার দিকে উপজেলার রাজানগর ইউনিয়নের নম্বর ওয়ার্ডের জমিদারবাড়ি সংলগ্ন এলাকার একটি বসতঘরে চুলা থেকে আগুন ধরে যায়। মুহুর্তে আগুন আশেপাশের ঘরে ছড়িয়ে পড়লে নুরুল হক, মঞ্জুরুল ইসলাম, মনোয়ারা বেগম, রবিজা খাতুনের মালিকানাধীন বসতঘর ও ঐ পাড়ায় ভাড়ায় থাকা প্রাণ গ্রুপের ডিলার এমদাদুল হকের বাড়ি, মিনি গোডাউন ও একই ঘরের একটি কে থাকা কর্মচারী সাইদুর রহমানের বাড়ি ও অপর একটি মিনি গোডাউন পুড়ে ছাই হয়ে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় এক ঘন্টার চেষ্ঠায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

 

বাবাকে মারধর, ছেলের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি :
রাঙ্গুনিয়ায় বাবাকে মারধর করেছে ছেলে। রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) সকালে বাবা নিজে বাদী হয়ে থানায় ছেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন। শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার বেতাগী ইউনিয়নের চেংখালী মির্জাখীল গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।
রাঙ্গুনিয়া থানার ওসি ইমতিয়াজ মো. আহসানুল কাদের ভুঞা বলেন, “অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। ”
অভিযোগকারী সৈয়দ নুর (৬২) বলেন, “শুক্রবার দুপুর ১২ টার দিকে আমার ছোট ছেলে নুরুল আজগর (৩০) ও তাঁর বন্ধু মো. আলমগীর(৩৫) বড় ছেলের স্ত্রী রানু আকতারের সাথে বিনা কারনে খারাপ আচরণ করলে আমি প্রতিবাদ করি। পরদিন শনিবার সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে আমার ছেলের স্ত্রী ও আমি বাড়ির পাশ্ববর্তী আজিম সওদাগরের দোকানে সামনে গেলে আজগর এলোপাতাড়ী মারধর করে। এসময় তাঁদের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন গিয়ে তাঁদের উদ্ধার করে। তাঁরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন।
রানু আকতার (২২) বলেন, তাঁর স্বামী দীর্ঘদিন ধরে বিদেশ থাকেন। তাঁর দেবর বিভিন্ন সময় তাঁর সাথে খারাপ আচরণ করেন। গতকাল শনিবার তাঁর শশুড় ও তাঁকে অহেতুক মারধর করে।