মহেশপুর এলজিইডি’র রাস্তা নির্মাণে শুরুতেই দূর্ণীতি, রাবিশ ইট দিয়ে ভাঙ্গা হচ্ছে খোয়া

মহেশপুর(ঝিনাইদহ)প্রতিনিধিঃ  ঝিনাইদহের মহেশপুর এলজিইডি’র বরাদ্দকৃত দেড় কোটি টাকার রাস্তা নির্মাণের শুরুতেই দূর্ণীতি, বৃষ্টিতে ভেজা পুরনো রাবিশ ইট দিয়ে ভাঙ্গা হচ্ছে খোয়া।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়ন পরিষদ থেকে সাড়াতলা গ্রাম পর্যন্ত ৩ কিঃমিঃ সীলকোর্ট রাস্তা নির্মাণ করার জন্য ১ কোটি ৬০ লক্ষ টাকা এলজিইউডি থেকে বরাদ্দ করা হয়। গত ২৭ শে জানুয়ারী রাস্তাটি স্থানীয় এমপি মোঃ নবী নেওয়াজ উদ্বোধন করেন। ঝিনাইদহের জনৈক ঠিকাদার রাস্তাটির কাজ পেয়ে উদ্বোধনের পরের দিন থেকে ২নং ও ৩নং আধলা রাবিশ ইট খোয়া ভাঙ্গার জন্য ফেলেছে। এলাকাবাসী বাধা দিলেও একটি প্রভাবশালী মহল ঠিকাদারকে সহযোগিতা করছে। এ ব্যাপারে মহেশপুর উপজেলা প্রকৌশলী ও ঝিনাইদহ নির্বাহী প্রকৌশলীর সাথে যোগাযোগ করলে তারা বলেন, রাবিশ ইট দিয়ে রাস্তা নির্মাণের কোন নিয়ম নেই। যদি কেউ এ ধরণের ইট ফেলে তাহলে সেটা রিজেক্ট করা হবে।

এ ব্যাপারে ঠিকাদারের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আমি কাজটি সাব-কন্ট্রাক দিয়ে দিয়েছি আমার কিছু বলার নেই।

স্থানীয় এমপি মোঃ নবী নেওয়াজের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, নি¤œ মানের ইট দিয়ে রাস্তার কাজ করা হচ্ছে এ ধরণের সংবাদ তাকে এলাকাবাসী জানিয়েছে, তিনি বিষয়টি কর্র্তৃপক্ষকে অবহিত করেছেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ঠিকাদার নি¤œ মানের ইট ফেলা অব্যাহত রেখেছেন।