ভাষা শহীদের জন্মস্থান গফরগাঁওয়ে অধিকাংশ শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানে নেই শহীদ মিনার

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা:  ভাষা শহীদ আব্দুল জব্বারের জন্মস্থান ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার অধিকাংশ শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানেই শহীদ মিনার নির্মাণ করা হয়নি। ফলে অমর একুশে ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস সহ বিভিন্ দিবসে অন্যত্রে গিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে শহীদ মিনার বিহীন শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানগুলোর শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মচারীরা। এছাড়াও শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার না থাকায় শিক্ষার্থীরা ভাষা আন্দোলনের প্রকৃত ইতিহাসও জানতে পারছে না। এ বিষয়ে একাধিক শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষকদের সাথে কথা বললে তারা জানান, শহীদ মিনার নির্মাণের নির্দেশনা থাকলেও নেই কোনো সরকারী বরাদ্দ, তাই শহীদ মিনার নির্মাণ করা সম্ভব হচ্ছে না। যার ফলে দ্রুত বিভিন্ন শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নির্মাণের দাবী জানান এলাকাবাসীসহ সচেতনমহল।

গফরগাঁও-হোসেনপুর সড়কে হাতি দিয়ে চাঁদাবাজি, অতিষ্ঠ সাধারন মানুষ
গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা ঃ
ময়মনসিংহের গফরগাঁও-হোসেনপুর সড়কে চলছে হাতি দিয়ে অভিনব কায়দায় চাঁদাবাজি। যত্রতত্র হাতি দাঁড় করিয়ে টাকা আদায়ের কারণে সড়কে বাড়ছে যানজট। বিড়ম্বনায় পড়ছেন গাড়ি চালকসহ চলাচলরত সাধারণ মানুষ। হাতি শুঁড় দিয়ে এমনভাবে মানুষ ও যানবাহন আটক করছে যে ভুক্তভোগী ইচ্ছার বিরুদ্ধে টাকা দিতে বাধ্য হচ্ছেন। গফরগাঁও রেলওয়ে ষ্টেশনের আসা ট্রেনযাত্রী জাহাঙ্গীর আলম জানান, তিনি হাতিকে দশ টাকা করে দিয়েছেন। কারণ হাতি শুঁড় দিয়ে চেপে ধরছে। দশ টাকা কম দিলে তা গ্রহণ করছে না। টাকা দিলে হাতিটি পিঠে বসে থাকা মাহুদকে শুঁড় উঁচিয়ে টাকা দিয়ে দেয়। যা চাঁদাবাজি শামিল। পালের বাজারে ব্যবসায়ী রুবেল জানান, হাতি দোকানের সামনে এসে দাঁড়ালে ক্রেতারা ভয়ে দোকানে ঢুকতে সাহস পান না। বিড়ম্বনা এড়াতে আমরা বাধ্য হয়ে টাকা দিয়ে দেই, যাতে হাতি তাড়াতাড়ি চলে যায়।