আবারও বাড়ছে সরকারি ছুটি, বুধবার আসতে পারে ঘোষণা

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণে না আসায় সাধারণ ছুটি আরো বাড়াতে যাচ্ছে সরকার। এ বিষয়ে আগামীকাল বুধবার ঘোষণা আসতে পারে বলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের বরাতে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা ইউএনবি।

ছুটি বাড়ানো হচ্ছে কি না জানতে চাইলে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন আজ মঙ্গলবার বলেন, ‘অবশ্যই! এখনও অফিস খুলে দেওয়ার সময় আসেনি। এখন করোনার চূড়ান্ত সময় যাচ্ছে।’

অপর এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘ছুটি বর্ধিত বিষয়ে এখনও কোনো নির্দশনা আসেনি। আগামীকাল (বুধবার) হয়তো নির্দশনা আসতে পারে।’

প্রতিমন্ত্রী জানান, এবার বর্ধিত ছুটি ঘোষণা হলে তাতে কিছু নতুন নির্দশনা থাকতে পারে। তবে বিষয়টি চূড়ান্তভাবে বলা যাবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসার পর।

তবে, একই বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে জনপ্রশাসন সচিব শেখ ইউসুফ হারুন বলেন, ‘এখনও ছুটি বর্ধিত করার বিষয়ে কোনো নির্দশনা পাওয়া যায়নি।’

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে প্রথম দফায় গত ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সরকারি ও বেসরকারি অফিসে সধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। দ্বিতীয় দফায় তা ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত এবং তৃতীয় দফায় ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়।

তবে সাধারণ ছুটির মধ্যেই সীমিত আকারে খোলা রয়েছে ব্যাংকগুলো। পাশাপাশি, নিত্যপণ্য ও ওষুধসহ জরুরি সেবাগুলো খোলা রয়েছে।

তৃতীয় দফা ছুটি ঘোষণার পর মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনা অনুযায়ী, করোনাভাইরাস সময়ে যেকোনো জরুরি পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করার লক্ষ্যে পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত বিভাগীয়, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের সরকারি দপ্তরের সব কর্মকর্তা ও কর্মচারীকে সার্বক্ষণিক কর্মস্থলে উপস্থিত থাকার কথা বলে হয়েছে।