সবদলকে নির্বাচনে আনতে নতুন কিছু করব না : সিইসি

নিউজ ডেস্ক : প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে.এম নুরুল হুদা বলেছেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সবদলের অংশগ্রহণের ব্যাপারে আমরা আলাদা করে কোনো উদ্যোগ নেইনি। আমরা আশা করি সবাই নির্বাচনে আসবে। যখন সংলাপ হয়েছে তখন প্রত্যেকটা দলকে বলেছি আপনারা সকলে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুন। নতুনভাবে আর কিছু আমরা করব না।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে বেলা ১১টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ (নাসিরনগর) আসনের উপ-নির্বাচন উপলক্ষে আয়োজিত আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক সভায় যোগ দেন সিইসি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, চট্টগ্রাম বিভাগের অতিরিক্ত কমিশনার (সার্বিক) শংকর রঞ্জন সাহা, বিজিবির সেক্টর কমান্ডার কর্নেল মো. জোবায়ের হাসনাত ও চট্টগ্রাম রেঞ্জ পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ আবুল ফয়েজ।

‘নির্বাচন কমিশনের প্রতি জাতীয় পার্টির আস্থা নেই’- হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের এমন বক্তব্যের ব্যাপারে সিইসি বলেন, আমাদের যে দায়িত্ব-কর্তব্য সেটা আমরা নিরপেক্ষভাবে এবং নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করে যাচ্ছি। আমরা নিরপেক্ষভাবে কাজ করছি। তিনি (এরশাদ) কেন এমন কথা বলেছেন তার উত্তর তিনিই দিতে পারবেন। আমরাতো ভোটারদের এবং রাজনৈতিক দল সমূহের আস্থা অর্জনের জন্যই কাজ করে যাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, আমাদের নির্বাচন কমিশন দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে যতগুলো নির্বাচন করেছি প্রত্যেকটা নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য হয়েছে। আপনারাও (সাংবাদিক) কেউ কখনো আমাদের নির্বাচনের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন করেননি, প্রশ্ন করার সুযোগও ছিল না। আমরা আশা করি নাসিরনগরের নির্বাচন তেমনিভাবে হবে।

গত বছরের ১৬ ডিসেম্বর মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী মোহাম্মদ ছায়েদুল হক মৃত্যুতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া -১ আসনটি শূন্য হয়। এখানে ১৩ মার্চ উপ নির্বাচনে দিন রেখে তফসিল দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।