২১ ফেব্রুয়ারি থাকবে চার স্তরের নিরাপত্তা: আছাদুজ্জামান

নিউজ ডেস্ক : ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসকে ঘিরে কোনো সুনির্দিষ্ট হুমকি নেই। তবে সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। শহীদ মিনার ও আশপাশের এলাকায় চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে।

বেশ কিছু সড়কে ডাইভারশন দেওয়া হবে উল্লেখ করে ডিএমপি কমিশনার বলেন, ২০ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা ছয়টা থেকে ২১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ডাইভারশন থাকবে। চানখাঁরপুল, বকশীবাজার, নীলক্ষেত পলাশী শাহবাগ, হাইকোর্ট ক্রসিং, রোমানা চত্বর, এসব এলাকা দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টিকার ছাড়া কোনো গাড়ি প্রবেশ করতে পারবে না।

আজ সোমবার শহীদ মিনারের সামনে এক ব্রিফিংয়ে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া এ কথা বলেন।

আছাদুজ্জামান মিয়া জানান, শহীদ মিনার ও আশপাশের এলাকায় ডগ স্কোয়াড ব্যবহার করে সুইপিং বা নিরাপত্তা তল্লাশি করা হবে। এ ছাড়া শাহবাগ-নীলক্ষেত মোড়ে বেষ্টনী দেওয়া হবে। এসব এলাকায় ভ্রাম্যমাণ দোকান ও হকার বসতে দেওয়া হবে না। তল্লাশি ছাড়াও নিরাপত্তার জন্য পুলিশের ভ্রাম্যমাণ দল, ফুট পেট্রোলিং থাকবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রবেশ পথে নিরাপত্তা তল্লাশি চৌকি বসানো হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক, ছাত্র ও কর্মচারী ছাড়া কাউকে ২০ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা ছয়টার পর ঢুকতে দেওয়া হবে না।

আছাদুজ্জামান মিয়া আরও বলেন, মন্ত্রী পরিষদ সদস্য, ভিআইপিদের দোয়েল চত্বর দিয়ে আসতে হবে। জিমনেশিয়াম চত্বর দিয়ে আসবেন কূটনীতিকেরা। তাঁরা শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে একই পথে বের হবেন। তাঁদের বের হওয়ার পর সাড়ে ১২টার দিকে পলাশী মোড় দিয়ে সর্বসাধারণের জন্য শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য পথ খুলে দেওয়া হবে। তারা জগন্নাথ হল ক্রসিং হয়ে শহীদ মিনারের উত্তর দিক দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে যাবেন।