বর্তমান পদ্ধতিতে প্রশ্নফাঁস ঠেকানো সম্ভব নয়: শিক্ষা সচিব

নিউজ ডেস্ক : বর্তমান পদ্ধতিতে পাবলিক পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁস ঠেকানো সম্ভব নয় বলে মনে করছেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন। তিনি বলেন, ‘চলমান এসএসসি পরীক্ষা ও আগামী ১ এপ্রিল থেকে শুরু হতে যাওয়া এইচএসসি পরীক্ষা সম্পর্কে আগাম কোনও নিশ্চয়তা দেওয়া আমার পক্ষে সম্ভব নয়। কারণ, বিদ্যমান পদ্ধতিতে প্রশ্নফাঁস ঠেকানো সম্ভব নয়। ৩০ হাজার মানুষের সম্পৃক্ততায় প্রশ্নপত্র তৈরি ও বিতরণ করা হয়। এর মধ্য থেকে যদি একজন অসৎ হন তাহলে পুরো ৩০ হাজার মানুষের সততা প্রশ্নবিদ্ধ হয়।’ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। মো. সোহরাব হোসাইন জানান, প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে প্রশ্ন প্রণয়নের ক্ষেত্রে শিক্ষা মন্ত্রণালয় নতুন পদ্ধতি উদ্ভাবনের চেষ্টা করছে। একইসঙ্গে প্রশ্নফাঁসের মূলে পৌঁছানোরও চেষ্টা করছে। প্রশ্নফাঁস ঠেকাতে ব্যর্থতা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে বৃহস্পতিবার হাইকোর্ট একটি রুল দিয়েছে। এই জবাব শিক্ষা সচিবকেও দিতে বলা হয়। রুলের বিষয়ে সোহরাব বলেন, ‘আদালত যে আদেশ দেবে আমরা অবশ্যই পরিপূর্ণভাবে প্রতিপালন করব। আমাদের কোনো নিষ্ক্রিয়তা থাকলে সেই বিষয়ে আমাদের বক্তব্য অবশ্যই আদালতের কাছে উপস্থাপন করব। তাছাড়া, প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধের জন্য প্রশ্ন প্রণয়নে নতুন পদ্ধতি উদ্ভাবনের চেষ্টা করছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।’

প্রশ্নফাঁসের হোতাদের ধরতে এর মূলে পৌঁছানোর জন্য গোয়েন্দা বাহিনী আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলেও জানান সোহরাব হোসাইন।