কিশোরগঞ্জে লোড আনলোড শ্রমিক ইউনিয়নের ৩ শতাধিক শ্রমিককে প্রধানমন্ত্রীর উপহার সামগ্রী বিতরণ

আমিনুল হক সাদী
করোনা নামক অজানা এ সঙ্কট মোকাবেলায় বাংলাদেশ সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। কর্মহীন এই সঙ্কটকালে কেউ যেন খাদ্যাভাবে কষ্ট করতে না হয় সেজন্য ঘরে ঘরে খাবার সামগ্রী পৌঁছে দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী জেলা প্রশাসকদের নির্দেশনা দিয়েছেন।
প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন অনুযায়ী কিশোরগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ডাঃ সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপির পরামর্শে ও জেলা প্রশাসক মোঃ সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরীর নিবিড় তত্বাবধানে উপজেলার দুস্থ অসহায়, কর্মহীনদের নিকট প্রতিনিয়ত প্রধানমন্ত্রীর উপহার (ত্রাণ সামগ্রী) পৌঁছে দেয়া হচ্ছে।

ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়, জেলা পরিষদের ও উপজেলা পরিষদের সহায়তায় এবং উপজেলা প্রশাসনের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় সদর উপজেলার সম্ভাব্য করোনা ভাইরাস সচেতনতায় তাঃক্ষনিক মানবিক সহায়তা প্রদানের জন্য মাহে রমজানের প্রথম দিনে শনিবার সকালে সদর উপজেলা কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণে কিশোরগঞ্জ জেলা লোড আনলোড শ্রমিক ইউনিয়নের প্রায় ৩ শতাধিক শ্রমিককে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে উপহার (ত্রাণ সামগ্রী) দেয়া হয়।

সামাজিক দূরত্ব যথাসম্ভব বজায় রেখে প্রত্যেক পরিবারের জন্য ১০ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ২ কেজি আলু , ২ কেজি করল্লা, একটি লাউসহ বিভিন্ন দ্রব্য সামগ্রী প্যাকেট করে প্যাকেজ পদ্ধতিতে বিতরণ করা হয়।

এসব ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে অংশ নেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট কামরুল আহসান শাহজাহান, সাধারণ সম্পাদক অ্যডভোকেট এম এ আফজাল, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ আব্দুল্লাহ আল মাসউদ, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মামুন আল মাসুদ খান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আব্দুল কাদির মিয়া, মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বিলকিছ বেগম, সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সাত্তার, উপজেলা কৃষি অফিসার জামাল উদ্দিন, উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার জেড এ সাহাদাৎ হোসেন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা কাওছার আহমেদ প্রমুখ।

এ সময বক্তারা বলেন, প্রশাসনের পর্যাপ্ত খাদ্যশস্য মজুদ রয়েছে। আতংকিত না হয়ে সচেতন হোন, ঘরে থাকুন। পর্যায়ক্রমে প্রত্যেকের ঘরে খাবার পৌঁছে দেয়া হবে। আপনারা ঘরে থাকুন,আমরা বাহিরে আছি-আপনাদের সুরক্ষিত রাখার জন্যে।

Daily Amar bangladesh

Lorem Ipsum is simply dummy text of the printing and typesetting industry. Lorem Ipsum has been the industry's standard dummy text ever since the 1500s, when an unknown printer took a galley of type and scrambled it to make a type specimen book. It has survived not only five centuries