বাজিতপুরে তুচ্ছ ঘটনায় প্রতিপক্ষের হামলায় গুরুতর আহত ৫

বাজিতপুর (কিশোরগঞ্জ) সংবাদদাতা ঃ

কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর উপজেলার সরারচর ইউনিয়নের তেগরিয়া মধ্যপাড়া গ্রামে বাদল মিয়ার নিদের্শে রুকন মিয়া, মোস্তাক মিয়া, অন্তর মিয়া, রিপন মিয়া সহ ১০-১৫ জন লোক দেশীয় অস্ত্র সজ্জিত হয়ে শিক্ষক মাসুদ রানার বাড়িতে হামলা চালালে অন্তত ৫ জন আহত হয়। গুরুতর আহতরা হলেন, বাদল মিয়া (৫৫), আল-আমিন (২৪), আলমগীর মিয়া (৪০), জাহির হোসেন (৩৫) ও ওয়াহাব মিয়া (৬০)। এদের মধ্যে বাদল মিয়া (৫৫) কে গুরুতর আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও আল-আমিন ও আলমগীরকে ভাগলপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গুরুতর আহত অবস্থায় ভর্তি করা হয়েছে। এই ঘটনাটি ঘটে রবি বার দিবাগত রাত ১১ টার দিকে। এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে, বাদল মিয়ার লোকজন মাষ্টার মাসুদ রানার দুটি বসত ঘর ভাঙচুড় ও ঘরে প্রবেশ করে সুকেস থেকে ১ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা ও ২ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার নিয়ে গেছে। এই ঘটনায় রবিবার রাত সারে ১১ টা থেকে সোমবার বিকেল পর্যন্ত মাষ্টার মাসুদ রানার বাড়িতে পুলিশ ঘটনাস্থলে ছিল। এই ব্যাপারে মাষ্টার মাসুদ রানা বাদী হয়ে রোকন মিয়া, মোস্তাক মিয়া, অন্তর মিয়া, রিপন মিয়া, সারোয়ার মিয়া সহ অজ্ঞাত ১৫ জনের নামে বাজিতপুর থানায় গতকাল মঙ্গলবার সকালে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

বাজিতপুরে তুচ্ছ ঘটনায় প্রতিপক্ষের হামলায় গুরুতর আহত ৫
বাজিতপুর (কিশোরগঞ্জ) সংবাদদাতা ঃ কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর উপজেলার সরারচর ইউনিয়নের তেগরিয়া মধ্যপাড়া গ্রামে বাদল মিয়ার নিদের্শে রুকন মিয়া, মোস্তাক মিয়া, অন্তর মিয়া, রিপন মিয়া সহ ১০-১৫ জন লোক দেশীয় অস্ত্র সজ্জিত হয়ে শিক্ষক মাসুদ রানার বাড়িতে হামলা চালালে অন্তত ৫ জন আহত হয়। গুরুতর আহতরা হলেন, বাদল মিয়া (৫৫), আল-আমিন (২৪), আলমগীর মিয়া (৪০), জাহির হোসেন (৩৫) ও ওয়াহাব মিয়া (৬০)। এদের মধ্যে বাদল মিয়া (৫৫) কে গুরুতর আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও আল-আমিন ও আলমগীরকে ভাগলপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গুরুতর আহত অবস্থায় ভর্তি করা হয়েছে। এই ঘটনাটি ঘটে রবি বার দিবাগত রাত ১১ টার দিকে। এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে, বাদল মিয়ার লোকজন মাষ্টার মাসুদ রানার দুটি বসত ঘর ভাঙচুড় ও ঘরে প্রবেশ করে সুকেস থেকে ১ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা ও ২ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার নিয়ে গেছে। এই ঘটনায় রবিবার রাত সারে ১১ টা থেকে সোমবার বিকেল পর্যন্ত মাষ্টার মাসুদ রানার বাড়িতে পুলিশ ঘটনাস্থলে ছিল। এই ব্যাপারে মাষ্টার মাসুদ রানা বাদী হয়ে রোকন মিয়া, মোস্তাক মিয়া, অন্তর মিয়া, রিপন মিয়া, সারোয়ার মিয়া সহ অজ্ঞাত ১৫ জনের নামে বাজিতপুর থানায় গতকাল মঙ্গলবার সকালে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।